video video video
  • হোম » অন্যান্য » ‘আইপিএল’ নিয়ে ভারতের সঙ্গে ফের সংঘাতের পথে আইসিসি



‘আইপিএল’ নিয়ে ভারতের সঙ্গে ফের সংঘাতের পথে আইসিসি


SPORTSONLY.NET :
20.02.2020

সোমবারই ২০২৩ থেকে ২০৩১ পর্যন্ত সার্কেলে একগুচ্ছ আন্তর্জাতিক টুর্নামেন্টের প্রস্তাব দিয়েছে ক্রিকেট নিয়ন্ত্রক সংস্থা আইসিসি। এই টুর্নামেন্টগুলোতে অংশ নেবে ক্রিকেট বিশ্বের সেরা দলগুলো।

আইসিসির এই প্রস্তাবে বেজায় ক্ষেপেছে ভারতীয় ক্রিকেট বোর্ড (বিসিসিআই)। নিজেদের রোজগার বাড়াতেই যে আইসিসি প্রতিবছর একটি করে মেগা টুর্নামেন্ট আয়োজন করতে চাইছে, তাতে সন্দেহ নেই। কিন্তু, আন্তর্জাতিক ক্রিকেট নিয়ামক সংস্থার এই উদ্যোগ চিন্তায় রাখছে ক্রিকেট অস্ট্রেলিয়া, ইসিবি (ECB) এবং বিসিসিাই- এর (BCCI) মতো বড় বোর্ডগুলোকে।

বিশেষ করে বিসিসিআই আইসিসির এই একগুচ্ছ টুর্নামেন্ট করার সিদ্ধান্ত নিয়ে চিন্তিত। কারণ, বোর্ডের একাংশ মনে করছে, আইসিসি প্রতিবছর মেগা টুর্নামেন্টের আয়োজন করলে তার প্রভাব পড়বে ইন্ডিয়ান প্রিমিয়ার লিগে (আইপিএল)। আন্তর্জাতিক টুর্নামেন্টের দাপটে কিছুটা হলেও কমে যেতে পারে আইপিএলের ভিউয়ারশিপ।

আইপিএল থেকে প্রতিবছর বিপুল পরিমাণ রোজগার হয় ভারতীয় বোর্ডের।

বিসিসিআই মনে করছে, আইপিএলের জনপ্রিয়তায় কোপ দেওয়াটাই মূল লক্ষ্য শশাঙ্ক মনোহরের নেতৃত্বাধীন আইসিসির। রোজগার কমলে, আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে বিসিসিআইয়ের প্রভাবও কমবে। আর সেটাই হয়তো চাইছে আন্তর্জাতিক ক্রিকেট নিয়ামক সংস্থা।

আইসিসির প্রধান পদে আপাতত একজন ভারতীয়। তিনি শশাঙ্ক মনোহর। কিন্তু, ভারতীয় হওয়া সত্ত্বেও ভারতীয় ক্রিকেট বোর্ডকে নিয়ে যে তিনি খুব একটা চিন্তিত নন, তার প্রমাণ আগেও মিলেছে। আবারও মিলল। অন্তত এমনটাই দাবি বিসিসিআই’র।

অন্যদিকে, ক্রিকেট অস্ট্রেলিয়া, ইসিবির মতো বোর্ডগুলো আশঙ্কা করছে, আইসিসির মেগা আন্তর্জাতিক টুর্নামেন্টের ফলে কমাতে হবে দ্বিপাক্ষিক সিরিজের সংখ্যা। সেক্ষেত্রে, তাদেরও রোজগার কমে যাবে। এই আশঙ্কা থেকে তারাও আইসিসির প্রস্তাবের বিরোধিতা করবে।

উল্লেখ্য, সোমবারই ২০২৩-৩১ সার্কেলের জন্য নতুন চারটি টুর্নামেন্ট আয়োজনের প্রস্তাব দিয়েছে আইসিসি। যার ফলে আগামী আটবছরে মোট আটটি আইসিসি টুর্নামেন্ট আয়োজিত হতে পারে।

আইসিসির প্রস্তাব অনুযায়ী, ২০২৩ সালে আয়োজিত হওয়ার কথা ওয়ানডে বিশ্বকাপ। ২০২৪ সালে আয়োজিত হবে টি-টোয়েন্টি চ্যাম্পিয়ন্স কাপ। ২০২৫ সালে আয়োজিত হবে ওয়ানডে চ্যাম্পিয়ন্স কাপ। ২০২৬ সালে আয়োজিত হবে টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপ। ২০২৭ সালে আবার ওয়ানডে বিশ্বকাপ আয়োজিত হবে। ২০২৮ সালে ফের আয়োজিত হবে টি-টোয়েন্টি চ্যাম্পিয়ন্স কাপ। ২০২৯ সালে আবারও আয়োজিত হওয়ার কথা ওয়ানডে চ্যাম্পিয়ন্স কাপ।২০৩০ সালে ফের আয়োজিত হবে টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপ। ২০৩১ সালেও আয়োজিত হওয়ার কথা ওয়ানডে বিশ্বকাপ। এই একগুচ্ছ টুর্নামেন্টই চিন্তায় রাখছে বোর্ডগুলোকে।

 



Copyright © 2019 sportsonly.net