video video video



মেসির খেলাকে ৬ বছর আগে রূপ দিয়েছিলেন বাংলাদেশের সুহাস!


SPORTSONLY.NET :
28.03.2019

পাক্কা ৬ বছর আগে ২০১৩ সালে আর্জেন্টাইন ফুটবল জাদুকর লিওনেল মেসির একটি ডিজিটাল ছবি এঁকেছিলেন বাংলাদেশি স্থপতি সুহাস নাহিয়ান। ছবিতে যেভাবে মেসিকে কল্পনা করেছিলেন তিনি; সম্প্রতি স্প্যানিশ লিগের একটি ম্যাচে ঠিক সেভাবেই ক্যামেরাবন্দি হয়েছেন ফুটবল জাদুকর! এই অবিশ্বাস্য ঘটনাটি ইন্টারনেটে এতটাই আলোচনার সৃষ্টি করেছে যে, তা নজর কেড়েছে আন্তর্জাতিক মিডিয়ার। রাতারাতি খ্যাতি পেয়ে গেছেন বাংলাদেশের এই তরুণ স্থপতি।

সুহাসের এই ঘটনা নিয়ে ‘বাংলাদেশের হ্যান্ড অব গড?’ শিরোনামে ফিচার করেছে খ্যাতিমান নিউজ এজেন্সি এএফপি। মেসিভক্ত সুহাস যে ছবিটি এঁকেছিলেন তাতে দেখা যাচ্ছে সাদা-সবুজ স্ট্রাইপ জার্সিধারী কয়েকজন প্রতিপক্ষ খেলোয়াড়ের মাঝে মেসি বল নিয়ে ড্রিবলিং করছেন। ছবিতে তার দেহভঙ্গি যেমন ছিল, বাস্তব ছবিটিতে ঠিক একই ভঙ্গিতে দেখা গেছে মেসিকে! আর বাস্তব ছবিটি গত সপ্তাহে বার্সেলোনা-রিয়াল বেটিস ম্যাচের। এই অদ্ভুত ছবিটি ক্যামেরাবন্দি করেছেন বার্তা সংস্থা এএফপির এক ফটোগ্রাফার।

সোশ্যাল সাইট ইনস্টাগ্রামে ছবিদুটি পোস্ট করে ২৯ বছর বয়সী সুহাস লিখেছেন, ‘আমি ৬ বছর আগে এই পেইন্টিংটি তৈরি করেছিলাম। এতদিন পর ফুটবল ঈশ্বর সেটা বাস্তবে পরিণত করেছেন!’

এএফপিকে দেওয়া সাক্ষাতকারে সুহাস বলেন, ‘আমি ম্যাচটি (বার্সেলোনা-রিয়াল বেটিস) দেখছিলাম। মেসি হ্যাটট্রিক করলেন; বার্সেলোনা ৪-১ ব্যবধানে জিতে গেল। আমার এক বন্ধু ফোন করে ছবিটির কথা বলল। তখন বিস্ময়ের সঙ্গে দেখলাম, ছবি দুটিতে আসলেই ভীষণ মিল। এটি অবিশ্বাস্য! খুব ভালো লাগছে যে একটিমাত্র পেইন্টিংয়ের কারণে আজ আমি খ্যাতি পেয়েছি। এটি স্প্যানিশ, আর্জেন্টাইন এবং ভারতীয় মিডিয়ায় প্রকাশিত হয়েছে।’

সুহাস যখন ছবিটি এঁকেছিলেন তখন তিনি ছাত্র। স্রেফ ঝোঁকের বশে একটি ফুটবল সিরিজ আঁকছিলেন তিনি। মেসির ড্রিবলিংয়ের ছবিটি তখন ফেসবুকের একটি ফুটবল ফ্যান পেইজে প্রকাশিত হয়েছিল। সুহাস আঁকার ক্ষেত্রে মেসির জন্য বার্সেলোনার জার্সি পছন্দ করেছিলেন কারণ তিনি কাতালান ক্লাবটির ভক্ত। তবে রিয়াল বেটিসের জার্সি পুরোটাই কল্পনা। শুধুমাত্র ‘কালার সেন্স’ থেকেই তিনি সবুজ-সাদা জার্সি দেন মেসির প্রতিপক্ষকে। বাস্তবেও তাই হলো। কাকতালীয় মিল কাকে বলে!

সুহাসের ছবিটি আন্তর্জাতিক গণমাধ্যমে ফলাও করে প্রচার হলেও এখনও মেসির নজরে এসেছে কিনা জানা যায়নি। ভবিষ্যতে কোনো মিডিয়া মারফত ছবিদুটি মেসির নজরে পড়লে নিশ্চয়ই সেটা সবচেয়ে আনন্দদায়ক ঘটনা হতে যাচ্ছে মেসি ও বার্সেলোনা ভক্ত সুহাসের জীবনে।



Copyright © 2019 sportsonly.net