video video video
  • হোম » ওয়ানডে » কিংবদন্তি কপিলকে ছাড়িয়ে গেলেন মাশরাফি



কিংবদন্তি কপিলকে ছাড়িয়ে গেলেন মাশরাফি


SPORTSONLY.NET :
09.12.2018

ভারতের কিংবদন্তি বোলার কপিল দেবকে ছাড়িয়ে গেলেন বাংলাদেশের অধিনায়ক মাশরাফি বিন মুর্তজা।

রোববার (৯ ডিসেম্বর) সফরকারী ওয়েস্ট ইন্ডিজের বিপক্ষে বাংলাদেশের প্রথম ক্রিকেটার হিসেবে ক্যারিয়ারের ২০০তম আন্তর্জাতিক ওয়ানডে খেলার মাইলফলক স্পর্শ করেন মাশরাফি বিন মুর্তজা। আর এই দুইশ ওয়ানডের মাইলফলকে পৌঁছে উইকেট শিকারের সংখ্যায় তিনি ছাড়িয়ে যান কপিল দেবকে।

 

হাটুর ইনজুরি আর অস্ত্রোপচারের কারণে ক্যারিয়ারে বেশ লম্বা একটা সময় মাঠের বাইরে থাকতে হয়েছে মাশরাফিকে। কিন্তু দমে যাননি তিনি। বারবার হাঁটুতে অস্ত্রোপচার না হলে উইকেট শিকারে পেসারদের এ তালিকায় হয়তো আরো এগিয়ে যেতে পারতেন ৩৫ বছর বয়সী অদম্য ম্যাশ।

 

২০০ বা ততোধিক ম্যাচ খেলে ২৫৫ উইকেট নিয়ে মাশরাফির অবস্থানটি তালিকার তেরতম অবস্থানে। ২২৫ ম্যাচে ২৫৩ উইকেট নিয়ে মাশরাফির পরের অবস্থানে রয়েছেন কপিল দেব। এ তালিকায় শীর্ষ অবস্থানটি পাকিস্তানি বোলার ওয়াকার ইউনুসের। ২৬২ ম্যাচ খেলে ৪১৬টি উইকেট নিয়েছিলেন পাকিস্তানি এ কিংবদন্তি বোলার। ৩০৩ ম্যাচে ৩৯৩ উইকেট নিয়ে পরের জায়গাটি দক্ষিণ আফ্রিকার শন পোলকের দখলে। তবে এশিয়ার বোলার হিসেবে মাশরাফির অবস্থানটি ষষ্ঠ অবস্থানে।

 

ওয়ানডে ক্যারিয়ারে দুইশ ম্যাচের মাইলফলক ছুঁলেও দেশের হয়ে সেই সংখ্যায় পৌঁছতে এখনো পিছিয়ে রয়েছেন মাশরাফি। সেজন্য আরো দুটি ম্যাচ খেলতে হবে তাকে। ২০০৭ সালের আফ্রো-এশিয়া কাপে দুটি ওয়ানডে খেলেছিলেন তিনি এশিয়া একাদশের হয়ে।

 

ওয়েস্ট ইন্ডিজের বিপক্ষে আজ (৯ ডিসেম্বর) মাঠে নামার আগে ১৯৯ ওয়ানডেতে মাশরাফির উইকেট সংখ্যা ছিল ২৫২টি। ৩১.৬৫ গড়ে যেখানে ডানহাতি এ পেসারের সেরা বোলিং ফিগার ৬/২৬। ২০০১ সালে চট্টগ্রামে জিম্বাবুয়ের বিপক্ষে ম্যাচ ওয়ানডেতে অভিষেক হয় মাশরাফির।

 

 



Copyright © 2019 sportsonly.net