video video video



যে ৭ কারণে মেসির চেয়ে এগিয়ে রোনালদো


SPORTSONLY.NET :
27.09.2018

স্প্যানিশ জায়ান্ট বার্সেলোনার প্রধান তারকা লিওনেল মেসি ও সাবেক রিয়াল মাদ্রিদ, বর্তমান জুভেন্টাস তারকা ক্রিস্টিয়ানো রোনালদো ফুটবল বিশ্বে চিরপ্রতিদ্বন্দ্বী হিসেবে পরিচিত। রেকর্ড গড়া-ভাঙা এবং অ্যাওয়ার্ড অর্জনে এই দুই তারকার মধ্যে যেন প্রতিযোগিতা লেগেই থাকে।

 

দীর্ঘ দিন বিশ্ব ফুটবলের এই দুই মহাতারকা একই লিগে খেললেও চলতি মৌসুমে প্রায় এক দশক পর আলাদা লিগে খেলছেন মেসি ও রোনালদো। তবে লিগ পরিবর্তন সত্ত্বেও এই তারকার মধ্যে চলছে তুলনা।

 

ভিন্ন লিগে খেললেও আসছে ২০১৯ সালে চ্যাম্পিয়ন্স লিগের নকআউট পর্বের ম্যাচে আবারও মুখোমুখি হবে এই দুই চিরপ্রতিদ্বন্দ্বী।

 

এখানে পর্তুগিজ তারকা ক্রিস্টিয়ানো রোনালদোর পছন্দের সংখ্যা ৭ এর সম্মানে একটি তালিকা তৈরি করা হয়েছে, যাতে এমন ৭টি কারণ উল্লেখ করা হয়েছে যা দ্বারা সহজেই বোঝা কেন মেসির চেয়ে ভাল এবং এগিয়ে রোনালদো।

#৭: বিশ্বের সেরা গোলদাতা

 

মেসি এবং রোনালদো দুজনেরই ইউরোপে দুটি শীর্ষ গোলদাতার রেকর্ড রয়েছে। তবে জুভেন্টাস তারকা মেসির চেয়ে এগিয়ে।

 

গত পাঁচ মৌসুমের চারটিতে ৩৩ বছর বয়সী পর্তুগিজ তারকা রোনালদোর গোল রেট অপেক্ষাকৃত ভাল। আর ৯ বছরের স্পেনীয় ক্যারিয়ারে তিনি ৪৩৮ ম্যাচে করেছেন ৪৫০ গোল।

 

ফুটবল ক্যারিয়ারে বিভিন্ন অ্যাঙ্গেল থেকে গোল করেছেন রোনালদো। দীর্ঘ রেঞ্জের গোল থেকে শুরু করে বিভিন্ন ভলির গোলে অসাধারণ তিনি। যদি গোলরক্ষকরা গোলপোস্টের সামনে কোনো একজন খেলোয়াড়কে বল পায়ে যমের মত পায়, তবে সেটি হচ্ছেন ক্রিস্টিয়ানো রোনালদো।

#৬: একাধিক লিগে প্রমাণিত

 

লিওনেল মেসি ক্যারিয়ারের শুরু থেকেই একই লিগে খেলছেন, এটি মন্দ দৃষ্টিতে দেখার জন্য এই লেখা নয়। বরং এর উদ্দেশ্য হচ্ছে, ক্রিস্টিয়ানো রোনালদো একাধিক লিগে খেলে নিজেকে প্রমাণিত করেছেন যে সকল জায়গাতেই সেরা। ২২ বছর বয়সে পর্তুগিজ তারকা ইংলিশ প্রিমিয়ার লিগে (ইংল্যান্ড) ছিলেন সেরা তারকা। সেখান থেকে স্পেনে পাড়ি জমানোর কয়েক বছরের মাথায় তিনি মেসিকে ছাড়িয়ে যান। নিজেকে প্রতিষ্ঠিত করেন লা লিগার সেরা তারকা হিসেবে। তিনি উভয় বিভাগেই ব্যক্তিগত সব অ্যাওয়ার্ড, সম্মান এবং ঘরোয়া ট্রফিও অর্জন করেছেন।

 

ম্যানচেস্টার ইউনাইটেড এবং রিয়াল মাদ্রিদ দুই ক্লাবেই তিনি তিনি লিজেন্ড ছিলেন। আর বর্তমানে ইতালীয় ক্লাব জুভেন্টাসে সেরা খেলোয়াড় হিসেবে নিজেকে প্রতিষ্ঠিত করা সময়ের ব্যাপার মাত্র।

#৫: ঝুঁকি মোকাবিলাকারী

 

টানা তিনবার চ্যাম্পিয়ন্স লিগ শিরোপা জয়ের পর, নিজেকে নতুন কন্ডিশনে মানিয়ে নিতে ৩৩ বছর বয়সেও লিগ পরিবর্তন করেছেন পর্তুগিজ তারকা রোনালদো। এটি নিঃসন্দেহে তার শক্তিশালী আত্মবিশ্বাসকেই প্রমাণ করে। কারণ, এই বয়সেও তিনি জুভেন্টাসকে শীর্ষ ক্লাবে পরিণত করতে প্রতিশ্রুতিবদ্ধ।

 

ক্রিস্টিয়ানো রোনালদো ও লিওনেল নিজ ক্লাব রিয়াল মাদ্রিদ ও বার্সেলোনাকে নিজেদের যোগ্যতা বলে একাধিক ট্রফি এনে দিয়েছেন। কিন্তু তিনি রোনালদো মেসির চেয়ে এখানেই আলাদা যে তিনি তার ক্যারিয়ারকে আর সুপ্রসারিত করতে ৩৩ বছর বয়সেও ঝুঁকি নিয়ে ভিন্ন লিগে পাড়ি জমিয়েছেন।

#৪: পরিপূর্ণ খেলোয়াড়

 

বর্তমান বিশ্বে যত খেলোয়াড় দেখা যায়, তাদের মধ্যে ক্রিস্টিয়ানো রোনালদো নিঃসন্দেহে একজন পরিপূর্ণ খেলোয়াড়। বলা যায়, তার গতি, দুরন্তপনা ও শক্তি সবার থেকে আলাদা। সাম্প্রতিক মেডিকেল রিপোর্ট এমনটিই জানিয়েছে। রিপোর্ট অনুয়ায়ী, রোনালদোর বয়স ৩৩ হলেও তিনি একজন ২০ বছর বয়সী খেলোয়াড়ের মত নিজের ফিটনেস ধরে রেখেছেন।

 

তাছাড়া মাঠে হেডিং, ফিনিশিং, ড্রিবলিং এমনকি অন্যের জন্য সুযোগ সৃষ্টির মতো গুণাবলিতে তিনি অসাধারণ পারফর্মার।

 

এর বাইরে, মেসির সঙ্গে তুলনা করা হলেও শারিরিক দিক থেকেও এগিয়ে রোনালদো। তার রয়েছে ওজন ও উচ্চতায় সুঠাম দেহ, যা মাঠে তাকে মেসির চেয়ে আরও বেশি সহায়তা করে। তাছাড়া গতি ও ড্রিবলিংয়ের ক্ষেত্রে রোনালদো সবসময়ই মেসির থেকে এগিয়ে তার শারিরিক ফিটনেসের কারণে।

#৩: আন্তর্জাতিক সাফল্য

 

যদিও মেসি আর্জেন্টিনার হয়ে অনেক গোল করেছেন। তবে তার এই পারফম্যান্স ক্লাব বার্সেলোনার পারফম্যান্সের চেয়ে অনেক পিছিয়ে। তাছাড়া এখনও পর্যন্ত দেশকে আন্তর্জাতিক কোনো সাফল্য এনে দিতে পারেননি মেসি।

 

অন্যদিকে, আন্তর্জাতিক অঙ্গনে দেশের জন্য সবসময়ই সেরাটা খেলার চেষ্টা করেন ক্রিস্টিয়ানো রোনালদো। নিজ যোগ্যতায় দেশ এনে দিয়েছেন আন্তর্জাতিক ট্রফি।

 

তুলনা করলে দেখা যায়, মেসি নিজ ব্যর্থতার জন্য সতীর্থদের সব সময় দোষ দিয়ে থাকেন। সার্জিও আগুয়েরো, গনজালো হিগুয়াইন, পাউলো দাইবালা এবং নিকোলাস ওতামেন্ডিদের মতো খেলোয়াড় পেয়েও রাশিয়া বিশ্বকাপে ব্যর্থতার পরিচয় দিয়েছেন। একাধিকবার সতীর্থদের দোষ দিয়ে তিনি জাতীয় দল থেকে মুখও ফিরিয়ে নিয়েছেন।

 

কিন্তু রোনালদো কখনোই জাতীয় দল থেকে মুখ ফিরিয়ে নেননি। বরং তিনি ব্রুনো আলভেস, ইডার ও জোসে ফন্টের নিম্নমানের খেলোয়াড় নিয়েও কেবল নিজ যোগ্যতায় দেশকে ইউরো কাপের শিরোপা এনে দিয়েছেন।

#২: বড় খেলায় সেরা সাফল্য

 

বড় আসরে সবসময়ই সেরা পারফম্যান্স দেখান ক্রিস্টিয়ানো রোনালদো। তিনি শুধু শীর্ষ চ্যাম্পিয়ন্স লিগ শিরোপা (৫) জয়ীই নন, তিনি ফাইনাল (৩) ম্যাচে গোলদাতার তালিকাতেও সেরা।

 

২০১৬ সালে ফাইনালে অ্যাটলেটিকো মাদ্রিদের বিপক্ষে তার জয়সূচক পেনাল্টি গোল ব্যাপক আলোচিত।

 

২০১১/১২ মৌসুম থেকে চ্যাম্পিয়নস লিগের প্রতিটি আসরে কমপক্ষে ১০ গোল করার কৃতিত্বও তার। আর গোলগুলো তিনি করেছেন নকআউট পর্বের মতো গুরুত্বপূর্ণ সময়ে।

 

এছাড়া ২০১৬ সালে পর্তুগাল ইউরো কাপের গ্রুপ পর্ব থেকেই বিদায় নিতে যাচ্ছিল। এমন সংকটকালে দুটি গোল করে দলকে টেনে তোলেন নকআউট পর্বে। এরপর ফাইনালে পর্তুগালের বিপক্ষে গুরুত্বপূর্ণ পেনাল্টি শটে দলকে এনে দেন শিরোপা।

 

এছাড়া এই আসরের সেমিফাইনালে ওয়েলসের বিপক্ষেও তিনি গোল ও অ্যাসিস্ট করেছেন।

 

এমনকি ফাইনাল ম্যাচে ইনজুরিতে পড়লেও মাঠ ছেড়ে যাননি তিনি। শেষ পর্যন্ত মাঠে থেকে সতীর্থদের উৎসাহ ও উদ্দীপনা দিয়ে গেছেন রোনালদো। বড় খেলায় তিনি প্রকৃতপক্ষেই অসাধারণ, ক্যারিয়ার স্টাডি করলেই এমন তথ্যই মেলে।

#১: উত্তরসূরী তৈরি

 

ক্রিস্টিয়ানো রোনালদো শুধুই মাঠেই সেরা নন, মাঠের বাইরে নিজের অর্জনগুলোকে সংরক্ষণ এবং সেগুলো তার অবসর জীবনে মানুষকে স্মরণ করিয়ে দিতেও দায়িত্বশীল। এজন্য পর্তুগালে নিজস্ব অর্থায়নে তিনি নির্মাণ করেছেন একটি জাদুকর, যেখানে তার অবিশ্বাস্য ফুটবল জীবনের সকল অর্জন সংরক্ষিত থাকবে। তাছাড়া তিনি ক্যারিয়ার নিয়ে স্বনামে একটি ডকুমেন্টিারিও তৈরি করেছেন।

 

এছাড়া ফুটবলের উন্নয়নে দান করার ব্যাপারেও তার রয়েছে সুখ্যাতি, যে কারণে তিনি ২০১৫ সেরা দানবীর খেলোয়াড়ের অ্যাওয়ার্ড অর্জন করেন।

 

এদিকে নিজের ছেলেকেও তিনি গড়ে তুলছেন একজন ফুটবলার হিসেবে। এরই মধ্যে তিনি ঘোষণা দিয়েছেন রোনালদো জুনিয়রের মধ্যে তিনি নিজের প্রতিচ্ছবি দেখতে পাচ্ছেন। রোনালদো জুনিয়ের একদিন তার মতোই বড় খেলোয়াড় হবে সেভাবেই তাকে তৈরি করছেন বলে জানান তিনি।

 

সূত্র: স্পোর্টসকীডা (ইংরেজি মূল প্রতিবেদন পড়তে এখানে ক্লিক করুন)

 

আরও পড়ুন:

রোনালদোর দেশ পর্তুগালকে হারাল বাংলাদেশ

৯৯ রানে আউট প্রথম বাংলাদেশি মুশফিক

এশিয়া কাপে শীর্ষ রান সংগ্রহকারী বাংলাদেশি মুশফিক

আফগান লিগে বাংলাদেশের গতিমানব তাসকিন

 



Copyright © 2019 sportsonly.net